রবিবার-২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ-৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ-১২ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

রামগড়ে মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাচ্ছেন ভূমিহীনরা

 

রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধিঃ
সারাদেশের ন্যায় ‘আশ্রায়ণের অধিকার-শেখ হাসিনার উপহার’এই শ্লোগানে রামগড় উপজেলায় ভূমি ও গৃহহীনদের মাঝে মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রায়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ১ম পর্যায়ে ১০জন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারা পাচ্ছেন জমির দলিলাদিসহ নতুন ঘর। প্রকল্পের আওতায় ইতিমধ্যে সরকারি খাস জমিতে গৃহ নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। আগামী ২৩জানুয়ারি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ঐদিনেই অসহায় ভূমিহীন পরিবারের মাঝে স্বপ্নের ঘরের যাবতীয় দলিলাদি হাতে তুলতেছে দিবেন।

আগামী ২৩ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে একযোগে আশ্রয়ন-২ প্রকল্পটি উদ্বোধন করলে উপকারভোগীদের মধ্যে ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হবে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানা গেছে। প্রত্যেক ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতাংশ খাসজমি বন্দোবস্থ করে ঐ জমির ওপর ঘর তৈরি করা হয়েছে। প্রতিটি ঘরের বরাদ্দ ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা এবং এতে রয়েছে ২০ ফুট বাই ২২ ফুট প্রস্থের ঘর। যাতে রয়েছে দু’টি কক্ষ, একটি রান্নাঘর, টয়লেট ও সামনে খোলা বারান্দাসহ অন্যান্য সুবিধাদী।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মনসুর আলী জানান, রামগড় উপজেলায় আশ্রায়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় সর্বমোট ৫৩টি ঘরে বরাদ্ধ পাওয়া গেছে। প্রথম পর্যায়ে ১নং রামগড় ইউপির হাতিরখেদা গ্রামে ১০ টি ঘর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে এবং বাকী ঘরের নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। যা সারাদেশের ন্যায় ২৩জানুয়ারি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ঐদিনেই অসহায় ভূমিহীন পরিবারের মাঝে ঘরের যাবতীয় দলিলাদি হাতে তুলে দিবেন।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) সজীব কান্তি রুদ্র জানান – অত্র উপজেলায় মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমি ও গৃহহীন মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্রায়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় খাস জমিসহ গৃহ নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। এসব অসহায়দের ঘরের দলিলাদি হস্তান্ত শুধু নির্দেশনার অপেক্ষা মাত্র।

রামগড় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মু.মাহমুদ উল্লাহ মারুফ বলেন, প্রথম পর্যায়ের বরাদ্দকৃত ঘরের নির্মাণকাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে। প্রকৃত ভূমিহীন ও গৃহহীনদের সরেজমিনে যাচাই বাচাই এর পরে ঘর গুলো তাদের নামে বরাদ্ধ দেয়া হয়। এখন অপেক্ষার পালা প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করলেই উপকারভোগীদের হাতে ঘরগুলো বুঝিয়ে দেয়া হবে। যার ফলে অসহায় পরিবারগুলো মাথা গোঁজার ঠাঁই পাচ্ছেন।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বিশ্ব প্রদীপ কুমার কারবারী বলেন, সারাদেশের ন্যায় রামগড় উপজেলায়ও কেউ গৃহহীন থাকবে না। আওয়ামী লীগ সরকার যে উন্নয়নে বিশ্বাসী এটি তার আরেকটি বড় উদাহরণ। মুজিব শতবর্ষে গৃহহীনদের ঘর নির্মাণের মাধ্যমে শেখ হাসিনার করা অঙ্গিকার বাস্তবায়ন করছেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on telegram
Telegram
Share on skype
Skype