শনিবার-১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ-১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ-৯ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

পূর্ণ শক্তির ব্রাজিল দল ফিরলেন নেইমার ও আলভেস

স্পোর্টস ডেস্ক

সবশেষ গত নভেম্বরে মাঠে গড়িয়েছিল এই অঞ্চলের বাছাইপর্ব। ওই সূচিতে নিজেদের দুই ম্যাচে ভেনেজুয়েলা ও উরুগুয়ের বিপক্ষে দলে ছিলেন না আলভেস ও নেইমার। দল ঘোষণার সময় নেইমার স্কোয়াডে থাকলেও ম্যাচের সপ্তাহ দুই আগে চোট পেয়ে ছিটকে গিয়েছিলেন পিএসজি তারকা।

আগামী ৪ জুন একুয়েডরের বিপক্ষে ঘরের মাঠে খেলবে ব্রাজিল। চার দিন পর প্যারাগুয়ের মাঠে খেলবে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। এই দুই ম্যাচের জন্য শুক্রবার ২৪ সদস্যের দল ঘোষণা করেন তিতে। ব্যাখ্যা করেন, ৩৮ বছর বয়সী রাইট ব্যাক আলভেসকে ফেরানোর কারণ।

“সে ভালো খেলছে আর জাতীয় দলের হয়ে তার চমৎকার অতীত আছে। সে শারীরিক ও মানসিক দিক থেকে নিজের সেরা অবস্থায় আছে। সে একজন নেতা এবং আমাদের আরও শক্তিশালী করতে পারে।”

এবারের বাছাইপর্বে এখন পর্যন্ত চার রাউন্ড হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত মাঠে নামা হয়নি ব্রাজিলের প্রথম পছন্দের গোলরক্ষক আলিসনের। প্রথম দুই ম্যাচের দলেই ছিলেন না তিনি। পরের দুই ম্যাচে স্কোয়াডে থাকলেও আরেক দফা চোটে খেলা হয়নি লিভারপুলের এই গোলরক্ষকের।

দলে আরও ফিরেছেন দুই মিডফিল্ডার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফ্রেদ ও অলিম্পিক লিওঁর লুকাস পাকুয়েতা। এবারও জায়গা হয়নি মৌসুম জুড়ে নিজেকে খুঁজে ফেরা রিয়াল মাদ্রিদের অভিজ্ঞ লেফট-ব্যাক মার্সেলোর।

গত মার্চে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের পঞ্চম রাউন্ডে মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার। তবে সেসময় করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মারাত্মক আকার ধারণ করেছে এমন দেশগুলোকে ‘লাল তালিকাভুক্ত’ করেছিল যুক্তরাজ্য সরকার, যে তালিকায় ছিল দক্ষিণ আমেরিকার সব দেশ। খেলোয়াড়দের জন্যও ছিল না কোনো ছাড়।

ফলে, যুক্তরাজ্যে খেলা খেলোয়াড়দের সেখান থেকে ফিরে নির্দিষ্ট হোটেলে ১০ দিন কোয়ারেন্টিন ছিল বাধ্যতামূলক। এই কারণে প্রিমিয়ার লিগের দলগুলো খেলোয়াড়দের ছাড়তে চায়নি তখন। পরে স্থগিত হয়ে যায় সেই মাসের কনমেবল অঞ্চলের বাছাইয়ের সব ম্যাচ। তিন মাসের বিরতির পর যা আবারও ফিরতে যাচ্ছে। তবে সেই দুই রাউন্ড হবে পরে।

প্রথম চার ম্যাচের সবকটিতে জিতে ১২ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষে আছে ব্রাজিল। তিন জয় ও এক ড্রয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আর্জেন্টিনা।

একুয়েডর ৯ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আর প্যারাগুয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে আছে।

কোভিড-১৯ মহামারীর কারনে স্থগিত হওয়া গত বছরের কোপা আমেরিকা মাঠে গড়াবে আগামী ১৩ জুন, চলবে ১০ জুন পর্যন্ত। মূলত এই ২৪ সদস্যের দলের ওপর ভিত্তি করেই মহাদেশ সেরার টুর্নামেন্টের জন্য দল সাজাবে গতবারের কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়নরা।

ব্রাজিল দল:

গোলরক্ষক: আলিসন (লিভারপুল), ওয়েভারতন (পালমেইরাস), এদেরসন (ম্যানচেস্টার সিটি)

ডিফেন্ডার: দানি আলভেস (সাও পাওলো), দানিলো (ইউভেন্তুস), আলেক্স সান্দ্রো (ইউভেন্তুস), রেনান লোদি (আতলেতিকো মাদ্রিদ), এদের মিলিতাও (রিয়াল মাদ্রিদ), চিয়াগো সিলভা (চেলসি), লুকাস ভেরিসিমো (বেনফিকা), মার্কিনিয়োস (পিএসজি)

মিডফিল্ডার: কাসেমিরো (রিয়াল মাদ্রিদ), ফাবিনিয়ো (লিভারপুল), ফ্রেদ (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), লুকাস পাকুয়েতা (অলিম্পিক লিওঁ), দগলাস লুইস (অ্যাস্টন ভিলা), এভেরতন রিবেইরো (ফ্লামেঙ্গো)

ফরোয়ার্ড: এভেরতন (বেনফিকা), রবের্তো ফিরমিনো (লিভারপুল), গাব্রিয়েল বারবোসা (ফ্লামেঙ্গো), গাব্রিয়েল জেসুস (ম্যানচেস্টার সিটি), নেইমার (পিএসজি), ভিনিসিউস জুনিয়র (রিয়াল মাদ্রিদ), রিশার্লিসন (এভারটন)

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on telegram
Telegram
Share on skype
Skype